একজনের খাবার আশিজন খেল

আনাস রা.-এর মা নবীজীকে খুব ভালবাসতেন। এজন্যই তো তিনি তার সন্তান আনাসকে নবীজীর খেদমতের জন্য উৎসর্গ করেছিলেন। আনাস রা.-এর মায়ের নাম ছিল উম্মে সুলাইম রা.। একদিন তিনি নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর জন্য পরম যত্নে রুটি বানালেন। তাতে একটু ঘি ঢেলে দিলেন। তাঁর ইচ্ছা এই সুস্বাদু খাবার নবীজীকে খাওয়াবেন। আনাস রা.-কে বললেন, বাবা! যাও নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে দাওয়াত কর।

আনাস রা. নবীজীর কাছে গিয়ে বললেন, আম্মা আপনাকে ডাকছেন। তখন নবীজী তাঁর সাহাবীদের মাঝে বসা ছিলেন। তাঁর কাছে যত মানুষ ছিল সকলকে বললেন, চলো আমার সাথে! এ দেখে আনাস রা.-এর তো মাথায় হাত!

আনাস রা. তখন নবীজীর আগে আগেই দৌড়ে মায়ের কাছে গেলেন। মাকে বললেন, নবীজী তো এত এত মানুষ নিয়ে আসছেন আমাদের বাসায়!

নবীজী এসে উম্মে সুলাইম রা.-কে বললেন-

هَاتِي مَا صَنَعْتِ.

তুমি যে খাবার প্রস্তুত করেছ তা পেশ কর।

এখন উম্মে সুলাইম এত মানুষের সামনে এই অল্প খাবার কীভাবে পেশ করবেন! তিনি মুখ ফুটে বলেই ফেললেন-

إِنّمَا صَنَعْتُهُ لَكَ وَحْدَكَ.

আল্লাহর রাসূল! আমি তো কেবল আপনার জন্য, একজন মানুষের পরিমাণ খাবার প্রস্তুত করেছি! (এত মানুষ কীভাবে কী করব?)
উম্মে সুলাইমের এ কথা শুনে নবীজী বললেন, সেটা বিষয় নয়; তুমি যা রান্না করেছ পেশ কর আমার সামনে। খাবার পেশ করা হল। তখন নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আনাস রা.-কে বললেন, দশজন-দশজন করে পাঠাও। আনাস রা. দশজন করে পাঠান আর তারা তৃপ্তিভরে খেয়ে বের হন, আরো দশজন আসেন। এভাবে একজনের খাবার ৮০জন মানুষ তৃপ্তিসহকারে খেলেন। -সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদীস ৩৩৪২

About সরল পথ

মিস করবেন না

দরদী বন্ধু | যে গল্পে হৃদয় গলে

ইরাকের এক সম্পদশালী লোক। নাম খোযায়মা বিন বিশর। তাঁর ছিল প্রচুর ধন-দৌলত ও বিত্ত-বৈভব। কিন্তু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *